শিশুর যত্ন

বাচ্চা হাতের কাছে যা পাচ্ছে মুখে দিচ্ছে

আপনার বাচ্চার আয়রন ডেফিসিয়েন্সি এনিমিয়া বা রক্তশুন্যতা নেই তো?

অনেক বাবা মায়ের একটা কমন অভিযোগ যে বাচ্চা হাতের কছে যা পায় মুখে দেয়। ময়লা জিনিস,  ভালো জিনিস সবই মুখে দেয়।  এক্ষেত্রে করনীয় কি? প্রথম কথা হচ্ছে বাচ্ছা হাতের কাছে যা পাবে তাই মুখে দেবে এটা একটা স্বাভাবিক বিষয়।  আপনি যখন ছোট ছিলেন আপনিও এমনটি করেছেন। সাধারণত ৯ মাস থেকে ৩ বছরের বাচ্ছারা এই কাজটি করে থাকে।  এই বয়সে বাচ্ছারা সাধারণত খেলনা,  রিমোর্ট,  মোবাইল এইগুলা মুখে দিয়ে থাকে।

কিন্তু বাচ্ছার যদি আয়রন ডেফিসিয়েন্সি এনিমিয়া বা রক্তশুন্যতা  থাকে তাহলে বাচ্ছা জানালার গ্রিল,  টেবিলের কোনা,  স্পঞ্জের স্যান্ডেল খাওয়ার মতো আচরণ করে থাকে।  তবে এটা তেমন কোন সমস্যা নয়।  ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী আয়রন এর ঔষধ খেলেই সেরে যাবে।

বাচ্ছা এইগুলা মুখে দেয় এটা একটা স্বাভাবিক বিষয়। কিন্তু বাবা মায়ের সবসময় খেয়াল রাখা উচিত বাচ্ছাকে যেন সব সময় জিবানুমুক্ত খেলনা দেওয়া হয়। মোবাইল,  টিভি বা এসির রিমোর্ট কখনোই বাচ্ছার কাছে দেবেন না। তাছাড়া ছোট খেলনা, টাকা,  কয়েন অথবা ব্যাটারির মতো ছোট ছোট জিনিস বাচ্ছার থেকে সবসময় দূরে রাখুন।

মোবাইল বা রিমোর্টে বলা হয়ে থাকে বাথ্রুমের চাইতে বেশি জিবানু থাকে।  এইগুলা কোন ভাবেই বাচ্চার হাতে দেবেন না।

আর তাছাড়া বাচ্ছারা ছোট ব্যাটারি মার্বেল,  কয়েন অথবা ছোট ছোট খেলনার টুকরা গিলে ফেলছে এর সংখ্যা ও কম নয়।

বাচ্ছারা এটা কেন করে।

বাচ্ছারা সবসময় কৌতুহলী হয়ে থাকে।  হাতের কাছে যা পায় সেটা কি তা সে বুঝতে চায়। আর এই জন্যই বাচ্ছারা সেটা মুখে ডুকিয়ে দেয়।

সকল বাবা মায়ের উচিত বাচ্ছাকে বেশি বেশি সময় দেওয়া বাচ্ছার বিছানা পত্র,  খেলনা,  যে সকল জিনিস বাচ্ছা স্পর্শ করে তা সবসময় পরিষ্কার রাখা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.